Breaking News

ডিজে গানের শব্দে ৬৩ মুরগির মৃত্যু!

বিয়েতে উচ্চশব্দে গানবাজনা নিয়ে প্রতিবেশীরা প্রায়ই অভিযোগ করে থাকেন। কিন্তু এসব অভিযোগকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে মাঝরাত অবধি বিয়ে বাড়িতে বাজতে থাকে উচ্চশব্দে বাজনা। অসুবিধা হলেও দুয়েক দিনের ব্যাপার মনে করে প্রতিবেশীরা বিষয়টি মেনেই নেন।কিন্তু এই গানবাজনার কারণে মুরগির মৃত্যু হওয়ায় শেষমেষ পুলিশে অভিযোগ করে বসলেন এক যুবক।

বুধবার গালফ নিউজ এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ উড়িষ্যার বাসিন্দা রঞ্জিত কুমার পারিদা জানান, স্থানীয় সময় রোববার মাঝরাতে পাশের বিয়ে বাড়িতে ‘কান ফাটানো’ শব্দে গান বাজতে শুরু করে। বার্তা সংস্থা এএফপিকে তিনি বলেন, প্রচণ্ড জোরে শব্দ হওয়ায় তার পোল্ট্রি ফার্মের মুরগিগুলো আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। তিনি বিয়ে বাড়িতে গিয়ে শব্দ একটু কমিয়ে দিতে অনুরোধ করেন। কিন্তু তারা সেই অনুরোধে কান তো দেয়ই না, উল্টো

বরের বন্ধু তাকে ধমক দেন। পরে প্রচণ্ড আওয়াজে তার পোল্ট্রি ফার্মের ৬৩ মুরগি একসঙ্গে মারা যায়।এক প্রাণী চিকিৎসক তাকে জানিয়েছেন, প্রচণ্ড শব্দের ফলে মুরগিগুলো হার্ট অ্যার্টাকে মারা যায়। এ ঘটনার পর রঞ্জিত বিয়ে বাড়িতে গিয়ে ক্ষতিপূরণ দাবি করেন। কিন্তু তারা সেই দাবি না মানায় পুলিশে গিয়ে অভিযোগ করেন রঞ্জিত।অবশ্য শেষমেষ অবশ্য পুলিশি হস্তক্ষেপে বিষয়টি সুরাহা হয়। বরের বাড়ির সদস্যরা রঞ্জিতকে ক্ষতিপূরণ দিতে রাজি হন।

আরও পড়ুন=ক্ষমতাকে শুধু ভোগ করার বস্তু হিসেবে নয়, জনগণের ভাগ্য পরিবর্তন করার সুযোগ হিসেবে নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিশ্বে মাথা উঁচু করে চলবে বলে জানান তিনি।বুধবার (২৪ নভেম্বর) স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে সংসদে বিশেষ আলোচনার জন্য ১৪৭ বিধিতে প্রস্তাব উপস্থাপন করে এবং প্রস্তাবের পক্ষে দেওয়া বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, স্বাধীনতার পর যে কাজটি বঙ্গবন্ধু শুরু করেছিলেন, আর ৫টি বছর যদি তিনি সময় পেতেন বাংলাদেশ মাথা উঁচু করে দাঁড়াতো। আজকে যে সম্মানজনক অবস্থায় আছে আমাদের বাংলাদেশ অর্থাৎ ৫০ বছর পূর্তিতে আমরা যে জায়গায় আসতে পেরেছি, সেই জায়গায় আমরা স্বাধীনতার ১০ বছরের মধ্যে পৌঁছে

যেতে পারতাম যদি জাতির পিতা বেঁচে থাকতেন। আমাদের দুর্ভাগ্য তাকে হত্যার পর সেই অগ্রযাত্রা ব্যাহত হয়। মাত্র সাড়ে তিন বছরের মধ্যে দেশ জাতিসংঘের স্বল্পোন্নত দেশের স্বীকৃতি পেয়েছিল। বঙ্গবন্ধু হত্যার পর বাংলাদেশ সেখানেই পড়েছিল। দেশের মানুষ আমাদের ভোট দিয়েছেন বলেই আজকে বাংলাদেশকে আমরা উন্নয়নের মহাসড়কে আনতে পেরেছি। মাত্র এই ১২ বছরের মধ্যে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়েছে।

Check Also

‘নৌকার বিরুদ্ধে যারা নির্বাচন করছে তারা মানসিক রোগী’

আসন্ন নির্বাচনে স্বতন্ত্র থেকে নৌকা মার্কা প্রতীকের বিরুদ্ধে যারা নির্বাচন করছেন, তারা মানসিক রোগী। তাদের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *