দেখা করতে এসে ধরা, কোটি টাকার কাবিনে সমাধান

প্রেমের টানে বরিশাল থেকে ছুটে এসে ঢাকার ধামরাইয়ে আটক হন এক প্রেমিক। শুক্রবার বাদ জুমা তাকে আটক করা হয়। শনিবার বিকালে ১ কোটি টাকার কাবিনে প্রেমিকার সঙ্গে ওই প্রেমিকের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। উপজেলার সুয়াপুর ইউনিয়নের ঈশানগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী জানান, ঢাকার ধামরাইয়ের ঈশানগর গ্রামের মো. কুটুমিয়ার কন্যা কানিজ ফাতেফার সঙ্গে ফেসবুকে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে বরিশাল সদরের টেম্পোর মোড় এলাকার আরমান আলী হাওলাদারের ছেলে মো.

আলী আজম হাওলাদারের। প্রেমের টানে আজম হাওলাদার শুক্রবার সকালে লঞ্চে চেপে সদরঘাটে আসেন। এরপর বাদ জুমা সোজা প্রেমিকার বাড়ি হাজির হন। বিষয়টি জানতে পেরে এলাকাবাসী তাকে আটক করে মারধর করেন। আটক প্রেমিকের বাবা-মাকে খবর পাঠানো হলে শনিবার দুপুরে তারা কুটুমিয়ার বাসায় আসেন। এরপর বিকাল

৫টার দিকে কাবিন রেজিস্ট্রি করে প্রেমিক-প্রেমিকার বিয়ে দেওয়া হয়।প্রেমিক আলী আজম হাওলাদার বলেন, ফেসবুকে কানিজ ফাতেমার সঙ্গে আমার পরিচয়ের পর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। তার সঙ্গে দেখা করতে আসি; কিন্তু আমাকে এলাকাবাসী আটক করেন। এরপর তাকে বিয়ে করি।কানিজ ফাতেমা বলেন, ফেসবুকের মাধ্যমে আলী আজম হাওলাদারের সঙ্গে আমার প্রেমের সম্পর্ক হয়। আমিই তাকে আসতে বলেছি;

কিন্তু গ্রামবাসী ও আমার পরিবারের লোকজন আমার মতামত উপেক্ষা করে তাকে আটক করেন। ভালোবাসার সম্মান রাখতে সে আমাকে বিয়ে করে স্ত্রীর মর্যাদা দিয়েছে। কানিজ ফাতেমার বাবা কুটুমিয়া বলেন, চেনা নেই, জানা নেই; মেয়ে একজনকে ভালোবাসবে তা হতে পারে না। তাছাড়া “ও” এখনো নাবালিকা। ওর সিদ্ধান্ত নেওয়ার বয়স

হয়নি। তাই তাকে আটক করা হয়। কিন্তু ছেলের বাবা-মা এসে বিয়ে সম্পন্ন করলে আমরা আত্মীয়তার বন্ধনে আবদ্ধ হই।ইউপি মেম্বার মো. জয়নাল আবেদীন বলেন, ছেলে-মেয়ে রাজি আছে। গ্রামবাসী ও পরিবারের লোকজন রাজি না হওয়ায় ওই ছেলেকে আটক করা হয়। তার মা-বাবাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে খবর পাঠানো হলে তারা যথাসময়ে চলে আসেন। এরপর ওই কিশোর-কিশোরীর বিয়ের মাধ্যমে বিষয়টি সমাধান করা হয়।

Check Also

একসঙ্গে ফাঁস নিলেন মা-মেয়ে

নাটোরে বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করায় মা ও মেয়ের একসঙ্গে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *