বেকার মুনিয়া ভাড়া থাকতেন লাখ টাকার ফ্লাটে, প্রতি মাসে বদলাতেন বাসার ফার্নিচার

রাজধানীর গুলশানের একটি বিলাসবহুল ফ্ল্যাট থেকে এক কলেজছা’ত্রীর ঝুলন্ত ম’রদেহ উ’দ্ধার করেছে পু’লিশ।সোমবার সন্ধ্যার পর গুলশান ২ নম্বরের ১২০ নম্বর সড়কের ফ্ল্যাটটি থেকে ম’রদেহটি উ’দ্ধার করা হয়।

তরুণীর নামমোসারাত জাহান মুনিয়া। তার বাড়ি কুমিল্লা শহরে। বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিকুর রহমান পরিবার নিয়ে কুমিল্লায় থাকেন। গুলশানের ফ্ল্যাটে মুনিয়া একাই থাকতেন। গুলশান থা’নার একজন কর্মক’র্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান,

দুই মাস আগে ওই তরুণী এক লাখ টাকা মাসিক ভাড়ায় বাসাটি ভাড়া নিয়েছিলেন। উপকমিশনার সুদীপ বলেন, দেশের একটি শীর্ষস্থানীয় শিল্প গ্রুপের ব্যবস্থাপনাপরিচালকের সঙ্গে মোসারাত জাহানের পরিচয় ছিল। তিনি ওই ফ্ল্যাটে যাতায়াত করতেন বলেও তথ্য পেয়েছেন তারা। তিনি আরও বলেন, মোসারাত জাহান রোববার (২৫ এপ্রিল) তার বড় বোনকে ফোন করে বলেন,

তিনি ঝামেলায় পড়েছেন। এ কথা শুনে তার বড় বোন সোমবার কুমিল্লা থেকে ঢাকায় আসেন। সন্ধ্যার দিকে ওই ফ্ল্যাটে যান তিনি। দরজায় ধাক্কাধাক্কি করলেও বোন দরজা খুলছিলেন না। এরও কিছুক্ষণ আগে থেকে বোনের ফোন বন্ধ পাচ্ছিলেন। পরে বাইরে থেকে ‘লক’ খুলে ঘরে ঢুকে বোনকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলতে দেখেন।

পরে তিনি বাড়িওয়ালাকে বিষয়টি জানান। তখন পু’লিশে খবর দেওয়া হয়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত গুলশান থা’নার পু’লিশ মোসারাতের লা’শের সুরতহাল করছিল। পু’লিশ সিসি ক্যামেরারফুটেজ এবং মোসারাতের ব্যবহৃত ডিজিটাল ডিভাইসগুলো জ’ব্দ করেছে। আপাতত এ ঘটনায় অ’পমৃ’ত্যুর মা’মলা হবে বলেও জানিয়েছেন পু’লিশ কর্মক’র্তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *