Breaking News

মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাবাকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় বাবা-ছেলের ফাঁসির রায়

রংপুরের কাউনিয়ায় মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করতে গিয়ে বাবা আবুল বাশারতকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত দুই আসামিকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে রংপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-২ এর বিচারক মো. তারিখ হোসেন আসামিদের উপস্থিতিতে এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, কাউনিয়া উপজেলার টেপামধুপুর ইউনিয়নের বিশ্বনাথ গ্রামের নুর আমিন ও তাঁর ছেলে মাহবুর ইসলাম।

এ ছাড়া অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় অপর দুই আসামি মাইদুল এবং মাহফুজার রহমানকে খালাস দেওয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী নয়নুর রহমান টফি বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, কাউনিয়া উপজেলার টেপামধুপুর ইউনিয়নের জিগাবাড়ি গ্রামের আবুল বাশারতের মেয়েকে স্কুলে যাওয়া আসার পথে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করতেন বিশ্বনাথ গ্রামের মাহবুর ইসলাম।

মেয়েকে উত্ত্যক্ত না করার জন্য বিষয়টি আবুল বাশারত অভিযুক্ত মাহবুর ইসলামের বাবা নুর আমিনকে জানান। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উল্টো আবুল বাশারতকে হত্যার হুমকি দেন বখাটে মাহবুর। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ২০১৮ সালের ২৫ নভেম্বর আবুল বাশারতের ওপর হামলা চালান মাহাবুর ও তাঁর লোকজন। গুরুতর অবস্থায় তাঁকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এ ঘটনায় আবুল বাশারতের স্ত্রী মর্জিনা বেগম বাদী হয়ে মাহবুর ইসলাম, তাঁর বাবা নুর আমিনসহ ৭ জনকে আসামি করে কাউনিয়া থানায় মামলা করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে ৪ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আদালতে দাখিল করেন। মামলায় ২০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ ও জেরা শেষে নুর আমিন ও তাঁর ছেলেকে ফাঁসির আদেশ দেন বিচারক। সেই সঙ্গে তাঁদের ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

আইনজীবী টফি জানান, এ রায়ের মধ্য দিয়ে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। ফাঁসির রায় দ্রুত কার্যকরের দাবি জানান তিনি। এদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবী রশীদ চৌধুরী জানান, তাঁরা ন্যায্য বিচার পাননি। এ আদেশের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।

Check Also

স্বামীর পরকীয়া, ননদ-ভাবির আত্মহত্যার অভিযোগ!

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে স্বামীর পরকীয়ার জেরে ননদ ও ভাবির আত্মহত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত রোববার (১৪ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *